mb

শনিবারও নিউইয়র্কে ৪ প্রবাসীর মৃত্যু

369

করোনায় আক্রান্ত হয়ে নিউইয়র্কে ৯ মে শনিবার ৪ বাংলাদেশির মৃত্যু হয়েছে। এরমধ্যে ৩০ বছরের এক গৃহবধূও রয়েছেন। এ নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে ২১৪ বাংলাদেশির প্রাণ গেল করোনা মহামারিতে।

হাসপাতাল এবং স্বজনের উদ্ধৃতি দিয়ে বাংলাদেশ সোসাইটির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আব্দুর রহিম হাওলাদার এবং সেক্রেটারি রুহুল আমিন সিদ্দিকী এ সংবাদদাতাকে জানান, ময়মনসিংহের সন্তান এবং স্বামী নাজমুস সাকিবের সাথে লং আইল্যান্ডে বসবাসরত তাসমীন নাওয়ার তমা (৩০) দীর্ঘ ২৮দিন করোনার সাথে যুদ্ধ করে হাল ছেড়ে দিলেন ৯ মে শনিবার ভোর রাতে। তিনি ছিলেন স্টোনিব্রুক হাসপাতালে।

অপরদিকে, যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের মানবাধিকার বিষয়ক সম্পাদক মিসবাহ আহমেদের মামা আলতাফ হোসেন লনী মিয়া (৮০) ইন্তেকাল করেন এদিন বিকেল ৬টায় ম্যানহাটানে মাউন্টশিনাই হাসপাতালে। হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। তিনি ছিলেন সিলেটের বিয়ানিবাজারের ঘুনগাদিয়া গ্রামের সন্তান এবং ৫০ বছর আগে এসেছিলেন যুক্তরাষ্ট্রে। তার মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন যুক্তরাষ্ট্রস্থ বিয়ানিবাজার সমিতির নেতৃবৃন্দ।

new ads

লং আইল্যান্ড হাসপাতালে ইন্তেকাল করেছেন সিলেটের সন্তান ও কুইন্সে বসবাসরত মুজাহেদ আলী (৭০)।

দিনাজপুরের সন্তান এবং উডসাইডে বসবাসরত মো. আব্দুল আজিজ (৬৫) ইন্তেকাল করেছেন একইদিন স্থানীয় হাসপাতালে। এর আগেরদিন রাত সাড়ে ১১টায় এস্টোরিয়ায় বসবাসরত সাব্বির এ খান (৬৭) মারা গেছেন মাউন্টশিনাই হাসপাতালে।

নিউইয়র্ক সিটিসহ পুরো রাজ্যে শুক্রবার মারা গেছে মোট ২২৬ জন। আগের দিন এ সংখ্যা ছিল ২১৬ অর্থাৎ একদিনের ব্যবধানে বেড়েছে ১০ জন। স্টেট গভর্নর এ্যান্ড্রু ক্যুমো প্রেস ব্রিফিংকালে জানান, তবে হাসপাতালে ভর্তির সংখ্যা অনেক কমেছে। এ রাজ্যে মোট মারা গেছে ২৬ হাজার ৭৭১। আক্রান্ত হয় ৩ লাখ ৪৩ হাজার ৪০৯ জন। এরমধ্যে সুস্থ হয়েছে ৮৩ হাজার ৩৩৭ জন

10