কুলাউড়ায় বাড়ি পৌঁছে দেওয়ার কথা বলে মামাতো বোনকে ধর্ষণ

2,799

 মৌলভীবাজার২৪ ডেস্ক: মৌলভীবাজার সরকারি কলেজ থেকে পরীক্ষা শেষে কুলাউড়ায় বাড়ি পৌঁছে দেওয়ার কথা বলে মামাতো বোনকে ধর্ষণ করেছে এক যুবক। সোমবার বিকেলে কুলাউড়া উপজেলায় নির্মাণাধীন একটি ভবনে ধর্ষণের ওই ঘটনা ঘটে বলে জানা যায়।

সোমবার দিবাগত রাত দুইটার দিকে ওই তরুণী তার মামাতো ভাই (২৫)কে আসামি করে কুলাউড়া থানায় ধর্ষণের অভিযোগে মামলা দায়ের করেন। এরপরই তাকে গ্রেপ্তার করে মঙ্গলবার আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়।

অভিযোগকারী তরুণী উপজেলা সদরের একটি কলেজের স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী।

মামলার এজাহার ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ওই তরুণী মৌলভীবাজার সরকারি কলেজ কেন্দ্রে তার প্রথম বর্ষের পরীক্ষা দিচ্ছেন। সোমবার বিকেলে পরীক্ষা শেষে বাড়ি ফেরার জন্য তিনি কলেজের সামনে গাড়ির জন্য অপেক্ষা করছিলেন। একপর্যায়ে তার ওই ফুপাতো ভাই মোটরসাইকেল যোগে সেখানে যান। তিনি বাড়ি পৌঁছে দেওয়ার কথা বলে তাকে মোটরসাইকেলে তোলেন। কুলাউড়ায় পৌঁছার পর ওই যুবক কাজ দেখার কথা বলে তাদের নির্মাণাধীন ভবনের ভেতরে তরুণীকে নিয়ে যান। সেখানে তিনি তাকে ধর্ষণ করেন। পরে একটি অটোরিকশায় তরুণীকে তুলে দেন। তরুণী বাড়ি পৌঁছে স্বজনদের বিষয়টি জানান এবং দিবাগত রাত দুইটার দিকে তার ফুপাতো ভাইয়ের বিরুদ্ধে মামলাটি করেন।

কুলাউড়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সঞ্জয় চক্রবর্তী মামলার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে যুবক তার মামাতো বোনকে ধর্ষণের কথা স্বীকার করেছেন। আদালত তাকে মৌলভীবাজার জেলা কারাগারে পাঠিয়েছেন। ওই ছাত্রীকে প্রয়োজনীয় স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য মৌলভীবাজারের সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।