বড়লেখা লাঠিটিলা-ভারত সীমান্তে বিজিবি-বিএসএফের পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত

304

এস এম জালাল উদ্দিনঃ
মৌলভীবাজারের বড়লেখা ও জুড়ী উপজেলার সীমান্ত এলাকায় অবৈধ অনুপ্রবেশ, নারী ও শিশু পাচার, সীমান্ত হত্যা-নির্যাতন, মাদকদ্রব্য এবং গবাদিপশু চোরাচালান বন্ধের লক্ষ্যে গত বৃহস্পতিবার বিজিবি-বিএসএফের মধ্যে পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

জুড়ী উপজেলার গোয়ালবাড়ী ইউপির লাঠিটিলা সীমান্তের ১৪০০ নং পিলার এলাকায় অনুষ্ঠিত পতাকা বৈঠকে বিজিবির পক্ষে নেতৃত্ব দেন বিজিবি ৫২ ব্যাটালিয়নের (বিয়ানীবাজার) অধিনায়ক লে. কর্ণেল ফয়জুর রহমান এসপিপি, পিএসসি এবং বিএসফের পক্ষে নেতৃত্ব দেন বিএসএফ ১৩৪ ব্যাটালিয়নের কমান্ডেন্ট শ্রী এল. হাওলাই।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, অনুষ্ঠিত পতাকা বৈঠকে অবৈধ সীমান্ত পারাপার, নারী ও শিশু পাচার, সীমান্ত হত্যা-নির্যাতন, মাদকদ্রব্য পাচার প্রতিরোধ এবং গবাদিপশু চোরাচালান বন্ধের ব্যাপারে আলোচনা হয়।

এছাড়াও সীমান্ত সংক্রান্ত দ্বি-পাক্ষিক স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিবিধ বিষয়াদি যেমন-সীমান্তে গুলিবর্ষণ না করা, চোরাচালান, অবৈধ অস্ত্র-গোলাবারুদ ও বিস্ফোরক দ্রব্য পাচার প্রতিরোধ, নারী-শিশু ও মানব পাচার প্রতিরোধ, অবৈধ সীমান্ত পারাপার বন্ধ করা, নিচ্ছিদ্র সীমান্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা, সমন্বিত টহল ইত্যাদি সম্পর্কে অত্যন্ত ফলপ্রসু আলোচনা হয়। সীমান্তে বিরাজমান শান্তিপূর্ণ সহবস্থান বজায় রাখার ব্যাপারেও উভয় পক্ষ একমত পোষণ করেন।

উভয় পক্ষই বাংলাদেশ-ভারত সীমান্ত চুক্তির আলোকে আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে উদ্ভুত যে কোন সমস্যা শান্তিপূর্ণভাবে সমাধানে বিজিবি-বিএসএফ ঐক্যমত পোষণ করে। উক্ত সৌজন্য স্বাক্ষাতে উভয় দেশের স্টাফ অফিসার, কোম্পানী কমান্ডারগণ উপস্থিত ছিলেন।

বিজিবি ৫২ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্ণেল ফয়জুর রহমান এসপিপি, পিএসসি পতাকা বৈঠকের সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, অত্যন্ত সৌহার্দ্য ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে অনুষ্ঠিত পতাকা বৈঠকে সীমান্ত সংক্রান্ত সকল বিষয়ে ফলপ্রসু আলোচনা হয়েছে।