কোটচাঁদপুরে মুক্তিযোদ্ধা সন্তানদের পৈত্রিক জমি নিয়ে বিরোধ, ঘর নির্মাণে আদালতের নিষেধাজ্ঞা!

72

কোটচাঁদপুর,প্রতিনিধিঃ ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর পৌর শহরে পৈত্রিক সম্পত্তিতে পাকা ঘর নির্মাণে বাধা দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে আপন ভায়ের বিরুদ্ধে। এমনকি জমি আত্মসাত করতে না পেরে ওই ভায়ের বিরুদ্ধে আদালতে ১৪৪ ধারায় মামলা দায়ের করেছেনে অভিযুক্ত ভাই সিরাজুল ইসলাম।

ঘটনাটি পৌর শহরের সলেমানপুর গ্রামের তেতুলতলা পাড়ার মুক্তিযোদ্ধা মৃত জাফর আলী মন্ডলের দুই পুত্র নজরুল ইসলাম ও সিরাজুল ইসলামের পৈত্রিক সম্পত্তিতে। এব্যাপারে অভিযুক্ত ছোট ভাই সিরাজুল ইসলাম বাদী হয়ে বড় ভাই নজরুল ইসলামের বিরুদ্ধে গত ১৬-০৬-১৯ তারিখে ঝিনাইদহ অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলা করেন। যার প্রেক্ষিতে চলতি মাসের ২১-০৭-১৯ তারিখ পর্যন্ত ১৪৪ ধারায় নিষেধাজ্ঞা জারী করে কোটচাঁদপুর মডেল থানা পুলিশকে জমিতে শান্তি-শৃঙ্খলা বজায় রাখতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

মামলা সূত্রে জানা যায়, কোটচাঁদপুর পৌর শহরের সলেমানপুর গ্রামের তেতুলতলা পাড়ার মুক্তিযোদ্ধা মৃত জাফর আলী মন্ডলের পৈত্রিক সম্পত্তির মধ্যে ১৯ শতক জমি ১৭ বছর পূর্বে স্ত্রী, চার পুত্র ও দুই কন্যা কে সর্বসম্মতিক্রমে আপোষ বন্টন নামার মাধ্যমে স্ত্রী রোমেলা বেগম ১.২৫ পুত্র নজরুল ইসসলাম ১৭৫.০০ তরিকুল ইসলাম ১৭৫.০০ সিরাজুল ইসলাম ১৭৫.০০ মিরাজুর ইসলাম ১৭৫.০০ কন্যা সোনা ভান ৮৭.৫০ তুহিনা ৮৭.৫০ জমি প্রদান করা হয়।

বিবাদী নজরুল ইসলাম জানান, জমি বন্টনের পর এর মধ্যে ছোট ভাই মিরাজুল ইসলামের অংশ ১৭৫.০০ জমি আমি ক্রয় করি। এবং আমার অংশে পাকা ঘরের উপর টিনের চাল দিয়ে বসবাস শুরু করি। বর্তমানে সেখানে টিনের চাল সরিয়ে ছাদ দিতে গেলে বাধা সৃষ্ঠি করে সেজো ভাই সিরাজুল ইসলাম। এমনকি ওই বাড়ি থেকে উচ্ছেদের হুমকি প্রদান করে।

এদিকে নজরুল ইসলামের কোন পুত্র সন্তান না থাকায় নিজের অবর্তমানের কথা ভেবে তিনি পৈত্রিক সূত্রে পাওয়া জমি নিজের স্ত্রী সুফিয়ার নামে লিখে দেন।
পরবর্তিতে পৌরসভার অনুমতি ক্রমে নিয়ম মেনে ঘরের টিন খুলে নির্মান কাজ শুরু করেন। এতেই ঘটে আরোও বিপত্তি । সিরাজুল ইসলাম আরোও ক্ষিপ্ত হয়ে নানা ভাবে হুমকি দিতে থাকে। এমনকি ভায়ের স্ত্রীকে এসিড নিক্ষেপ করে পুড়িয়ে মারার হুমকি দেন।

কোনভাবেই সিরাজুল কাজ বন্ধ করতে না পেরে নিজেই বাদী হয়ে গত ১৬-০৬-১৯ তারিখে ঝিনাইদহ অতিরিক্ত জেলা মেজিস্ট্রেট আদালতে হাজির হয়ে নজরুল ইসলাম সহ দুই জনের বিরুদ্ধে ফৌঃ কাঃ বিঃ ১৪৪ ধারায় মামলা দায়ের করেন।
পরবর্তিতে চলতি মাসের ২১-০৭-১৯ তারিখ পর্যন্ত ১৪৪ ধারায় নিষেধাজ্ঞা জারী করে কোটচাঁদপুর মডেল থানা পুলিশকে জমিতে শান্তি-শৃঙ্খলা বজায় রাখতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের নির্দেশ প্রদান করে আদালত।

এদিকে ঘরের টিন খোলা রেখে খোলা আকাশের নিচে মানবতার জীবন যাপন করছেন নজরুল ইসলামের পারিবার। এমনকি ছোট ভায়ের আঘাতের ভয়ে গরুর গোয়ালে রাত কাটাচ্ছেন নজরুল দম্পত্তি।