নিজেকে ছাড়িয়ে যেতে চাই: সোহানি

41

হালের প্রতিভাবান মডেল ও অভিনেত্রী সোহানি ইসরাত। গত বছর উচ্চ-মাধ্যমিক পার হওয়া এই তরুণী অল্প সময়ে বেশ কিছু নাটকে অভিনয় করে নির্মাতাদের নজর কেড়েছেন। গতানুগতিক ধারার বাইরে এসে নিয়মিত কাজ করছেন। পাশাপাশি নিজেকে আরও সমৃদ্ধ করতে নিচ্ছেন সংগীতের তালিম। কাজ করছেন বিজ্ঞাপনেও।

পেশাগত ব্যস্ততা ও আগামী দিনের কর্মপরিকল্পনাসহ নানা বিষয় নিয়ে সম্প্রতি সোহানি কথা বলেছেন ঢাকা টাইমস-এর সঙ্গে। তার সঙ্গে আলাপচারিতায় ছিলেন বোরহান উদ্দিন।

বর্তমান সময়ের ব্যস্ততা সম্পর্কে বলুন

বেশ কিছু নাটকের কাজ করছি। কিছুদিন আগে নেপাল থেকে কাজ শেষ করে আসলাম। বেশ কয়েকটি নাটক মুক্তির অপেক্ষায় আছে। মোটামুটি পরিকল্পনামাফিক আগাচ্ছে সবকিছু।

অভিনয়ের কোন জিনিসটা সবচেয়ে চ্যালেঞ্জিং মনে হয়?

আমার কাছে অভিনয়টা আসলে অনেক ধরণের দক্ষতার মিশ্র একটা প্রতিক্রিয়া। সবচেয়ে কঠিন ব্যাপার হল সুচারুরূপে ডায়ালগ বলতে পারা। যেহেতু আমি মিডিয়াতে খানিকটা নবীন, তাই প্রতিদিনই কিছু না কিছু শিখছি। নিজেকে সর্বোচ্চ স্তরে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছি।

মডেলিং নাকি নাটক, কোনটায় বেশি স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করেন?

আমার ক্যারিয়ার শুরু হয়েছিল ফটোশ্যুট দিয়ে। তাই দুই দিকেই টান আছে। নাটকে নিজেকে মেলে ধরার অনেক সুযোগ থাকে। নানা এক্সপেরিমেন্ট করতে পারি। অন্যদিকে মডেলিংয়ে খুব অল্প সময়ে সর্বোচ্চ উজাড় করে দিতে হয়। এই হল তফাৎ। তবে নাটকে আবেগ নিয়ে কাজ করার সুযোগ থাকে, যেটা আমার কাছে খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

অভিনয় জগতে চলার পথে অনুপ্রেরণা কে?

আমার জীবনে মোটামুটি সব কাজের অনুপ্রেরণাই আমার বাবা। আমার চলার পথের সবচেয়ে বড় সঙ্গী। বাবাই আমাকে জীবনে অনেক বড় কিছু হওয়ার স্বপ্ন দেখিয়েছেন। বলতে গেলে তিনিই আমার অভিনয় জীবনে অনুপ্রেরণার উৎস।

ভবিষ্যত পরিকল্পনা কী?

নিজেই নিজেকে ছাড়িয়ে যেতে চাই। প্রতিদিন নিত্যনতুন অভিজ্ঞতাগুলো যোগাড় করে দর্শকদের সেরাটুকু উপহার দিতে চাই। তবে জীবনে যতদূর এগিয়ে যাই না কেন, নিজের ব্যক্তিত্ব ও সম্মানটুকু ধরে রাখছে চাই।

সময় দেয়ার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ