ডাকসু নির্বাচনে লড়ছেন মৌলভীবাজারের প্রত্যন্ত অঞ্চলের দুই শিক্ষার্থী

408

মৌলভীবাজার টুয়েন্টিফোর ডট কম:ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্রসংসদ নির্বাচনে মৌলভীবাজারের দু’জন এবার প্রতিদ্বন্ধিতা করছেন। একজন কেন্দ্রীয় সংসদে আর অন্যজন হল সংসদে। তারা হলেন, ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের শিক্ষার্থী অনুপম দত্ত আর অন্যজন মাকেটিং বিভাগের শিক্ষার্থী সন্তোষ রবিদাস অঞ্জন।
অনুপম বিশ্ববিদ্যালয়ের জগন্নাথ হল সংসদের ভিপি (সহ-সভাপতি) পদে প্রতিদ্বন্ধিতা করছেন। আর সন্তোষ কেন্দ্রীয় সংসদে সমাজ সেবা সম্পাদক পদে।

বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন এবং প্রগতিশীল ছাত্রজোট সমর্থিত প্রার্থী অনুপম দত্তের বাড়ি মৌলভীবাজারের রাজনগর উপজেলার শ্বাসমহল গ্রামে। আর স্বতন্ত্রপ্রার্থী সন্তোষ রবিদাস অঞ্জনের বাড়ি কমলগঞ্জ উপজেলার শমসেরনগর চা বাগানে। চা জনগোষ্ঠী থেকে একমাত্র প্রার্থী তিনি।
এই নির্বাচনে সিলেট বিভাগ থেকে অনুপম এবং সন্তোষসহ মোট চারজন প্রার্থী এবার প্রতিদ্বন্ধিতা করছেন। অন্য দু’জন হলেন বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন ও প্রগতিশীল ছাত্রজোট সমর্থিত প্রার্থী রাজিব কুমার দাস। তিনি কেন্দ্রীয় সংসদে সাহিত্য সম্পাদক পদে প্রতিদ্বন্ধিতা করছেন। রাজিবের বাড়ি সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলায়। আরেকজন কাজল দাস। তিনি ছাত্রলীগ মনোনীত প্রার্থী। জগন্নাথ হল সংসদে সাধারণ সম্পাদক (জিএস) পদে লড়ছেন। তার গ্রামের বাড়ি হবিগঞ্জ জেলার মাধবপুর উপজেলায়।
অনুপম দত্ত বলেন, প্রত্যন্ত এলাকা থেকে বিশ^বিদ্যালয়ে পড়তে এসেছি। আমি নির্বাচনে জয়ী হলে আমার মতো সাধারণ শিক্ষার্থীদের দাবি নিয়ে কাজ করবো।
সন্তোষ রবিদাস অঞ্জন বলেন, আমি চা জনগোষ্ঠীর সন্তান হিসেবে একমাত্র প্রার্থী হয়েছি ডাকসুতে। আমি জয়ী হলে প্রত্যন্ত এলাকার দরিদ্র শিক্ষার্থীদের অগ্রাধিকার দিয়ে দায়িত্ব পালন করবো।
দীর্ঘ ২৮ বছর পর ডাকসুর পাশাপাশি হল ছাত্র সংসদের নির্বাচন হতে যাচ্ছে। ১১ মার্চ সকাল ৮টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত হলগুলোতে স্থাপিত ভোটকেন্দ্রে শিক্ষার্থীরা পরিচয়পত্র দেখিয়ে ভোট দেবেন ভোটাররা।