সিলেট শিশুদের দিয়ে পতিতাবৃত্তি, ভূয়া স্ত্রীসহ পুলিশের এসআই আটক

395

সিলেট নগরীর দাড়িয়াপাড়ায় দুই শিশুকে দিয়ে পতিতাবৃত্তি করানো ও ইয়াবা বিক্রির অভিযোগে ভূয়া স্ত্রীসহ পুলিশের এক এসআইকে (উপ পরিদর্শক) আটক করেছে র‌্যাব। এসময় বাসা থেকে তমা ও দিপা নামের দুই শিশুকে উদ্ধার করা হয়।

শনিবার দিবাগত রাত পৌণে ১টার দিকে র‌্যাব-৯ এর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাঈন উদ্দিন চৌধুরীর নেতৃত্বে নগরীর দাড়িয়াপাড়া মেঘনা এ-২৬/১ নম্বর বাসায় এ অভিযান পরিচালনা করা হয়।

অভিযানে আটককৃতরা হলেন- সিলেট নগরীর মুন্সিপাড়ার মৃত আবদুল রশিদের ছেলে রোকন উদ্দিন ভুইয়া (৪০) ও নেত্রকোনা জেলার কালিয়াজুড়ি থানার আটগাঁও’র মৃত মফিজুল মিয়ার মেয়ে রিমা বেগম (৩৫)। তারা উভয়ই বর্তমানে মেঘনা এ-২৬/১ নম্বর বাসার নিচতলায় বসবাস করতো।

রোকন উদ্দিন ভূইয়া সিলেটের লালাবাজারস্থ ৭ আর্মড ব্যাটালিয়নে এসআই পদে কর্মরত আছেন। রিমা বেগমকে স্ত্রী পরিচয় দিয়ে অবৈধভাবে সে ওই বাসায় বসবাস করে আসছিল।

র‌্যাব-৯ এর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (মিডিয়া অফিসার) মো. মনিরুজ্জামান জানান, দাড়িয়াপাড়ার একটি বাসায় শিশুদের আটকে রেখে পতিতাবৃত্তিতে বাধ্য করা হচ্ছে এবং ওই বাসা থেকে ইয়াবা ব্যবসা হচ্ছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালানো হয়। এসময় অন্যান্য অপরাধীরা পালিয়ে গেলেও দুইজনকে আটক করতে সক্ষম হয় র‌্যাব সদস্যরা।

মনিরুজ্জামান আরও জানান, রোকন উদ্দিন ভুইয়া ও রিমা বেগম ভালো চাকুরি দেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে গরীব, অসহায় এবং সুন্দরী নারী ও শিশুদের এনে জোর করে পতিতাবৃত্তিতে বাধ্য করতো। এছাড়া তারা ইয়াবা ব্যবসায়ও জড়িত ছিল।