প্রেমিকার সাথে ভাড়া বাসায় ২১দিন সংসার করে পালালো প্রেমিক

944

তিন বছরের প্রেম। এরপর সুখের সংসার সাজানোর বাসনায় সিলেট জেলার গোয়াইনঘাট উপজেলার পশ্চিম জাফলং ইউনিয়নের ভুগইল কান্দি গ্রাম থেকে প্রেমিকের হাত ধরে পালিয়ে যায় এক তরুণী। তরুণীর চোখে-মুখে উঁকি মারা স্বপ্ন বোনা শুরু হয় রাজধানী ঢাকায়। স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে ঘর ভাড়া নেয় তার প্রেমিক।

এরপর ২১ দিন দু’জনের সাধনার সেই ভালবাসার ছড়াছড়ি আর বিনিময় প্রতিযোগিতা। নিত্য-নতুন স্বপ্নে ভাসছিল প্রেমিকা। কিন্তু স্বপ্নজালে হঠাৎ ছন্দপতন। ২২দিনের মাথাতেই পালিয়ে যায় প্রেমিক। আর পরিণতি বিয়ের দাবীতে প্রেমিকা এখন অবস্থান নিয়েছেন প্রেমিকের বাড়ীতে।

খোজ নিয়ে জানা যায়, ভুগইল কান্দি গ্রামের বীরমুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হাসিমের ছেলে আব্দুস সামাদ পার্শ্ববর্তি বাড়ির বাবুল মিয়ার মেয়ের সাথে গত তিন বছর থেকে প্রেম করে আসছিলেন। গত তিন মাস পূর্বে বিয়ের প্রতিশ্রুতিতে সামাদের সাথে মেয়েটি পালিয়ে যায় ঢাকায়।

ঢাকায় তারা একটি বাসায় স্বামী ও স্ত্রীর মত কাটান ২১ দিন। পরে কিছু না বলে হঠাৎই সামাদ পালিয়ে যান। মেয়েটির মা-বাবা অনেক খোঁজাখুজির পর মেয়েকে ঢাকা থেকে উদ্ধার করেন। তাকে উদ্ধারের পর থানায় সামাদের উপর মামলা করার জন্য গেলে থানা মামলা নেয়নি।

উপায়ন্তর না দেখে বিয়ের দাবি নিয়ে সোমবার সকাল থেকে সামাদের বাড়িতে অবস্থান করে অনশনের ঘোষণা দিয়েছেন ওই তরুণী। এ খবর ছড়িয়ে পড়লে গ্রামের উৎসুক মানুষ সামাদের বাড়িতে ভিড় করছে।

সামাদের পিতা-মাতার সাথে এ বিষয়টি নিয়ে কথা বলে, তারা প্রেমের বিষয়টি অস্বীকার করেন।

গোয়াইনঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আব্দুল জলিল বলেন, অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে