হবিগঞ্জে জাঁকজমকপূর্ণ আয়োজনে এশিয়ান টেলিভিশনের ৬ষ্ঠ বর্ষপূতি উদযাপন

72

স্টাফ রিপোর্টার ॥ হবিগঞ্জের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ উল্ল্যাহ (বিপিএম সেবা) বলেছেন, হবিগঞ্জের মত বৈচিত্রময় জেলা আর দেশের কোথায় নেই। এ জেলার একদিকে হাওরে আর অন্য দিকে ধান আর ধান। কিন্তু দাঙ্গার কারণে কারণে হবিগঞ্জের সুনাম বিনষ্ট হচ্ছে। তিনি বলেন- গ্রাম্য দাঙ্গা প্রতিরোধ করা হলে হবিগঞ্জ সারা দেশের অন্যান্য জেলার চেয়ে একটি অত্যাধুনিক জেলা হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হবে। এ এখানে আছে তেল এবং প্রাকৃতিক গ্যাস। আন্তর্জাতিক মানের রির্সোট দ্যা প্যালেস রয়েছে। এ জেলা থেকে চায়ের উৎপাদন হচ্ছে। এখানের দেশের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠিত কোম্পানীগুলো শিল্প কারখানা গড়ে তুলেছে। আরো সমৃদ্ধিশালী হিসেবে এ জেলা প্রতিষ্ঠিত হবে
তিনি সকলের সহযোগিতায় হবিগঞ্জকে দাঙ্গা মুক্ত একটি জেলা হিসেবে গড়ে তোলা হবে বলে ঘোষনা দেন। গতকাল শুক্রবার সকালে এশিয়ান টেলিভিশনের ৬ষ্ঠ বর্ষপূর্তি উপলক্ষে হবিগঞ্জ প্রেসক্লাব মিলায়তনে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
পুলিশ সুপার আরো বলেন-দাঙ্গা প্রতিরোধ সচেতনা মূলক বিভিন্ন কর্মকান্ড হাতে নিয়েছে। এ মধ্যে নাটিকা তৈরী, সাংস্কৃতিককর্মকান্ডসহ বিভিন্ন কার্যক্রম করা হবে। তিনি বলেন-হবিগঞ্জের দাঙ্গা নিয়ন্ত্রণে পুলিশের পাশাপাশি সাংবাদিকদের বলিষ্ট ভূমিকা রাখতে হবে। তিনি বলেন-যারা কৃষক জমি চাষ করেন তাদের মস্তিকে জঙ্গিবাদ নেই। কোথায় জঙ্গিবাদ হলে তা প্রতিরোধ করতে হবে।
সভায় বক্তারা বলেন-এশিয়ান টেলিশনের বিভিন্ন অনুষ্ঠান ইতিমধ্যে দর্শকদের মন কেঁড়েছে। এ টেলিভিশনের হবিগঞ্জ জেলা হিসেবে এসএম সুরুজ আলী মাঠ পর্যায়ে বস্ত্রনিষ্ট সংবাদ পরিবেশন করে যাচ্ছে। বক্তারা এশিয়ান টেলিভিশনের উত্তোর সাফল্য কামনা করেন। সভায় বক্তারা আরো বলেন- দেশে অসংখ্য টিভি চ্যানেল প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। প্রত্যেকটি টেলিভিশন স্বাধীনভাবে কাজ করছে। গণমাধ্যমে হবিগঞ্জের সমগ্র উন্নয়ন কর্মকান্ড ও বিভিন্ন সমস্যা তুলে ধরতে হবে। তারা আরো বলেন-এশিয়ান টেলিভিশনের এক ব্যক্তিক্রম রং রয়েছে। যেটি মানুষকে আকর্ষণ করে। এই টেলিভিশনের মাধ্যমে বস্তুনিষ্ট সংবাদ পরিবেশন করতে হবে। তারা এশিয়ান টেলিভিশন কর্তৃপক্ষকে শুভেচ্ছা জানান এবং সাংবাদিকদের আন্তরিকভাবে কাজ করার আহ্বান জানান।
জাঁকজমকপূর্ণ অনুষ্ঠানে হবিগঞ্জ টিভি জার্নালিস্ট এসোসিশনের সভাপতি প্রদীপ দাশ সাগরের সভাপতিত্বে এবং এশিয়ান টেলিভিশনের হবিগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি এসএম সুরুজ আলীর পরিচালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন হবিগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি হারুনুর রশিদ চৌধুরী, প্রেসক্লাব সাধারণ সৈয়দ এখলাছুর রহমান খোকন, সাবেক সভাপতি মোঃ ফজলুর রহমান, সাবেক সাধারণ সম্পাদক চৌধুরী মোহাম্মদ ফরিয়াদ, আডভোকেট শাহ ফখরুজ্জামান, সাংবাদিক ফোরাম এর সভাপতি মোঃ শাকিল চৌধুরী, আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল তদন্ত সংস্থার সদস্য সাংবাদিক রফিকুল হাসান চৌধুরী তুহিন, আতুকুড়া-সুবিদপুর শিক্ষা কল্যাণ সতিমির উপদেষ্ঠা অ্যাডভোকেট মাসুদ করিম আখনজী তাপস, অ্যাডভোকেট আবু নাঈম মোল্লা মোঃ শিবলী খায়ের, হবিগঞ্জ টিভি জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের সাধারণ মোঃ ছানু মিয়া, সাবেক সাধারণ সম্পাদক এমএ হালিম, দৈনিক খোয়াই’র বার্তা সম্পাদক মঈন উদ্দিন আহমেদ, রতœা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এমএ তাহের, হবিগঞ্জ নাট্য নিকেতনের সভাপতি সৈয়দ রাশিদুল হাসান রুজেন, দর্পণ হবিগঞ্জের সাধারণ সম্পাদক সিএম রায়হান উজ্জল, মাদক বিরোধী শক্তি হবিগঞ্জ জেলা শাখার সভাপতি আব্দুল মোচ্ছাব্বির চৌধুরী রাব্বী, এসএ টিভির জেলা প্রতিনিধি আব্দুর রউফ সেলিম, দৈনিক দিনের শেষে জেলা প্রতিনিধি এসকে সাগর, বাংলা টিভির জেলা প্রতিনিধি কাজল সরকার, বিজয় টিভির জেলা প্রতিনিধি ইলিয়াছ আলী মাসুক, প্রজন্ম ডটকমের সাহিবুর রহমান, দৈনিক মাতৃভূমির জেলা প্রতিনিধি সৈয়দ ইব্রাহিম মিজান, আলোর জগত এর জেলা প্রতিনিধি নজরুল ইসলাম, পল্লী টিভির জেলা প্রতিনিধি অপু আহমেদ রওশন, প্রিয়ডট কম এর জেলা প্রতিনিধি এম সজলু, দৈনিক হবিগঞ্জ এক্সপ্রেস এর স্টাফ রিপোর্টার কাজী মিজানুর রহমান, হবিগঞ্জ সমাচার স্টাফ রিপোর্টার জাহেদ আলী মামুন, দৈনিক প্রভাকরের বার্তা সম্পাদক কামরুজ্জামান এমরান, নবীগঞ্জ প্রতিনিধি হামির হামজা, মাদক বিরোধী শক্তি হবিগঞ্জ জেলা শাখার যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সমির দাস, সদস্য টুটন চন্দ্র পাল, নাট্য অভিনেতা শাহ রাসেল, সংগীত শিল্পী রাসেল, জেলা ছাত্রলীগ নেতা সায়েম, কলেজ ছাত্রলীগ নেতা আরিফ চৌধুরী, তাজুল ইসলাম, দৈনিক খোয়াইয়ের সার্কলেশন ম্যানেজার সাইফুল ইসলাম, শাওন, দর্পনের সহ-মহিলা বিষয়ক সম্পাদিকা তানজি চৌধুরী, নুরুজ আলী, হাসানুজ্জামান, আসাদুজ্জামান রকি প্রমূখ। অনুষ্ঠান শেষে বর্ণাঢ্য এক র‌্যালী বের করা হয়। অনুষ্ঠান শেষে বর্ণাঢ্য এক র‌্যালী বের করা হয়। অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন জহর আহমেদ ফাহদী।