1. mrrahel7@gmail.com : Admin : Mahbubur Rahel
  2. samadpress96@gmail.com : Samad Ahmed : Samad Ahmed
শুক্রবার, ১৫ জানুয়ারী ২০২১, ০৮:১৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম
কমলগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে চার স্তরের নিরাপত্তা মেয়র পদে লড়াই হবে ‌ত্রিমুখী ইন্টারন্যাশনাল স্ট্যান্ডার্ড ইউনিভার্সিটিতে চলছে ভর্তি মেলা কোটচাঁদপুরে মিথ্যা সংবাদের প্রতিবাদ ও প্রাপ্ত সম্পত্তি পাওয়ার দাবিতে সংবাদ সম্মেলন মৌলভীবাজার পৌরসভা নির্বাচনঃ দলমত নির্বিশেষে মানুষের সুখে দুঃখে ছুটে যান…কাউন্সিলর নাহিদ হোসেন মৌলভীবাজার পৌরসভা নির্বাচনঃ আবারও মানুষের সেবা করতে চাই মহিলা কাউন্সিলর শিল্পী বেগম জুড়ীতে বিদ্যালয়ের গাছ কাটায় সভাপতিকে অপসারণ করে কমিটি বিলুপ্ত মৌলভীবাজার আওয়ামী নবীনলীগ কেন্দ্রীয় কমিটিতে স্থান পেলেন যারা জুড়ী ফুলতলা সড়কে যানচলাচল বন্ধ থাকবে ২৪ ঘন্টা মৌলভীবাজার সাজাপ্রাপ্ত আসামি আটক মৌলভীবাজারে সৌদিয়া পরিবহন নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে নৌবাহিনীর সদস্যসহ আহত-৪

যেভাবে পাকড়াও হলেন এস.আই আকবর

  • আপডেট সময় সোমবার, ৯ নভেম্বর, ২০২০

মৌলভীবাজার২৪ ডেস্ক: সিলেটের বন্দরবাজার পুলিশ ফাঁড়িতে পুলিশের নির্যাতনে নিহত রায়হান আহমদ হত্যার মূল অভিযুক্ত এসআই আকবর হোসেন ভূঁইয়াকে (সাময়িক বরখাস্তকৃত) গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

সোমবার (৯ নভেম্বর) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে স্থানীয় জনতার সহায়তায় জেলা পুলিশের একটি দল কানাইঘাটের ডনা সীমান্ত এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করে।

শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত (বিকেল ৩টা) আকবরকে সিলেট জেলা পুলিশ কার্যালয়ে নিয়ে আসার জন্য পুলিশের একটি দল তাকে নিয়ে সিলেটের উদ্দেশ্যে রওয়ানা দিয়েছে বলে  জানিয়েছেন জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার লুৎফর রহমান।

তিনি জানান, আকবরকে সিলেটে নিয়ে আসার পর জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে প্রেস ব্রিফিং করা হবে।

এদিকে, পুলিশ ব্যুরো ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) সিলেটের পুলিশ সুপার খালেকুজ্জামান জানান, আকবরকে জেলা পুলিশ রাতে পিবিআই-এর কাছে হস্তান্তর করতে পারে।

সিলে নগরীর বন্দরবাজার পুলিশ ফাঁড়িতে নির্মম নির্যাতনে আখালিয়া এলাকার যুবক রায়হান আহমদের মৃত্যুর একমাসের মাথায় সোমবার (৯ নভেম্বর) দুপুরে সিলেটের কানাইঘাট উপজেলার লক্ষীপ্রসাদ ইউনিয়নের ডনা সীমান্ত এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয় মূল অভিযুক্ত (সাময়িক বরখাস্তকৃত) বন্দর ফাঁড়ির সাবেক ইনচার্জ আকবর হোসেন ভূঁইয়াকে।

প্রথমে তিনি জনতার হাতে আটক হন। পরে পুলিশ দ্রুত গিয়ে তাকে উদ্ধার করে। ফেসবুকে আপলোডকৃত এক ভিডিও ফুটেজে দেখা যায়, স্থানীয় খাসিয়া সম্প্রদায়ের মানুষের হাতে প্রথমে পাকড়াও হন আকবর। এসময় নিজেকে বাঁচাতে কেঁদে ফেলেন আকবর এবং তাকে ছেড়ে অনুনয় করতে থাকেন। এসময় জনতা তাকে রশি দিয়ে বাঁধেন এবং পরে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে।

গত ১১ অক্টোবর রাতে রায়হান আহমদকে বন্দরবাজার ফাঁড়িতে তুলে নিয়ে নির্যাতন করা হয়। পরদিন সকালেই রায়হান মারা যান। এ ঘটনায় তার স্ত্রী বাদি হয়ে মামলা করলে এসএমপির একটি অনুসন্ধান কমিটি তদন্ত করে সত্যতা পায়। ১২ অক্টোবর ফাঁড়ির ইনচার্জের দায়িত্বে থাকা এসআই আকবর হোসেনসহ চারজনকে সাময়িক বরখাস্ত ও তিনজনকে প্রত্যাহার করা হয়। ১৩ অক্টোবর আকবর পুলিশি হেফাজত থেকে পালিয়ে যায়।

গা-ঢাকা দেয়ার ২৬ দিন পর আজ আজ পাকড়াও হলেন আকবর।

এ সংক্রান্ত আরোও নিউজ