mb

কুলাউড়া পৌরসভার ৪৪ কোটি ৫১ লাখ ১৮ হাজার ৭২৯ টাকার বাজেট ঘোষনা

694

কুলাউড়া প্রতিনিধি, মৌলভীবাজার :: মৌলভীবাজারের কুলাউড়া পৌরসভার ২০২০-২০২১ সালের বাজেট ঘোষনা অনুষ্টানে মেয়র শফি আলম ইউনুছ এক সংবাদ সম্মেলনে পৌরবাসীদের উপর নতুন কোন করারোপ না করে ৪৪ কোটি ৫১ লাখ ১৮ হাজার ৭২৯ টাকা ৯১ পয়সার বাজেট ঘোষনাকালে বলেন, বর্তমান পরিষদের প্রচেষ্টায় কুলাউড়া পৌরসভা ভবনের অত্যাধুনিক উন্নয়নসহ বিগত সময়ের অনেক সমস্যার উন্নয়ন সাধন করা হয়েছে।

তিনি পৌরবাসীদের সুখবর দিয়ে বলেন, পৌর এলাকায় পানি সরবরাহের কাজের খাতের বরাদ্ধ অনুমোদন হয়েছে। খাতের বরাদ্ধের ২৫ কোটি টাকা প্রাপ্তি সাপেক্ষে কাজ শুরু করার আশ্বাস দেন।

এছাড়া তিনি আগামী অর্থ বছরে রাজস্ব খাতের উল্লেখযোগ্য কাজের মধ্যে রাস্তা সংস্কার ও মেরামত খাতে ৪০ লাখ টাকা, ড্রেন ও ময়লা পরিস্কার খাতে ২০ লাখ টাকা, বিদ্যুত খাতে বিলসহ ১০ লাখ টাকা, আর্থিক সাহায্য/ অনুদান খাতে ৫ লাখ টাকা, জরুরী ত্রান খাতে ১৫ লাখ টাকা, খেলাধুলা ও সংস্কৃতিখাতে ৫ লাখ টাকা, শিক্ষা ও সামাজিক ব্যয় খাতে ৫ লাখ টাকা, মশক ও বেওয়ারিশ কুকুর নিধন খাতে ১৫ লাখ টাকা, বৃক্ষ রোপন ও রক্ষনাবেক্ষন খাতে ১ লাখ টাকা, পশুর হাট খাতে ৫ লাখ টাকা এবং উন্নয়ন খাতের উল্লেখযোগ্য কাজের মধ্যে গুরুত্বপুর্ন নগর অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্প (২য় পর্যায়ের আওতায় রাস্তা ও ড্রেন নির্মান খাতে) ৮ কোটি ৭০ লাখ টাকা, জলবায়ূ পরিবর্তন ট্রাষ্ট ফান্ড এর আওতায় (ড্রেন, রাস্তা,কালবার্ট নির্মান খাতে) ২ কোট টাকা, নুতন রাস্তা নির্মান খাতে ৩০ লাখ টাকা, রাস্তা মেরামত ও সংস্কার খাতে ২ কোট টাকা, ড্রেন নির্মান খাতে ৫০ লাখ টাকা, কালবার্ট নির্মান খাতে ২০ লাখ টাকা, সড়ক বাতি স্থাপন খাতে ৫ লাখ টাকা, পৌর এলাকায় পানি সরবরাহ খাতে ২৫ কোটি টাকা, অফিস ভবন খাতে ১০ লাখ টাকা, রিং ল্যাট্রিন খাতে (পাবলিক টয়লেট তৈরী) ৩ লাখ টাকা ও মশক নিধন খাতে ১৫ লাখ টাকা ব্যয় করা হবে বলে উল্লেখ করেন।

new ads

এছাড়া মেয়র শফি আলম ইউনুছ আরও বলেন, কুয়েত সরকারের আরেকটি বিশাল উন্নয়ন খাতে ১৫ কোটি টাকার বরাদ্ধ পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। তিনি বর্তমান বাজেটে পৌর এলাকার বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়ন করে সকলের সহযোগিতায় একটি সুন্দর পৌরসভা গঠনের অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন।

অনুষ্টানে লিখিত বাজেট পাঠ করেন কুলাউড়া পৌরসভার পৌর সচিব শরদিন্দু রায়।

প্রস্তাবিত বাজেটে সর্বমোট আয় দেখানো হয়েছে ৪৪ কোটি ৫১ লাখ ১৮ হাজার ৭২৯ টাকা ৯১ পয়সা ও ব্যয় ৪৪ কোটি ৩১ লাখ ৯৬ হাজার ০৯৮ টাকা এবং উদ্বৃত্ত দেখানো হয়েছে ১৯ লাখ ২২ হাজার ৬৩১ টাকা ৯১ পয়সা।

করোনা পরিস্থিতিতে পৌরভবনে সীমিত পরিসরে আয়োজিত বাজেট অনুষ্টানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ছিলেন কুলাউড়া পৌরসভার প্যানেল মেয়র পৌর কাউন্সিলার জয়নাল আবেদীন বাচ্চু, পৌর কাউন্সিলার ইকবাল আহমদ শামীম, পৌর কাউন্সিলার কায়সার আরিফ, পৌরসভার উপ-সহকারী প্রকৌশলী মো কামরুল হাসান, কুলাউড়া প্রেসক্লাব সভাপতি এম শাকিল রশীদ চৌধুরী, সংবাদকর্মী প্রভাষক মোতাহার হোসেন, শরীফ আহমদ, এস আর অনি চৌধুরী, পৌরসভার কর্মকর্তা,কর্মচারীবৃন্দ প্রমুখ।

10